08:34am  Wednesday, 25 Nov 2020 || 
   
শিরোনাম



মাতৃত্বকালীন ভাতা পেতে শিবগঞ্জে সহস্রাধীন আবেদনে সংসদ সদস্যের সুপারিশ
০৮ জুলাই ২০২০, বুধবার, ২৪ আষাঢ় ১৪২৭, ১৬ জিলকদ ১৪৪১



শিবগঞ্জ সংবাদদাতা: দুই বছর আগে  দুই জজম সন্তান জন্ম দেয়ার পর মাতৃত্বকালীন ভাতার জন্য প: প: বিভাগের মাঠকর্মী এক মহিলাকেকাগজপত্র দিয়েছিলাম। একবার ৫শ টাকা পেয়েছিলাম। তারপর আর কোন খবর নেই। পরে আবারো স্থানীয় মেম্বারকে কাগজপত্র দিয়েছিলাম। সেটারও কোন সংবাদ পাইনা। তাই এবার আবারো সবার মুখে শুনে স্বামী ও দুই জজম সন্তান নিয়ে দরখাস্ত লেখা ও ছবি তোলার জন্য কম্পিউটারের দোকানে এসেছি। কথাগুলো বলনের শিবগঞ্জ উপজেলার মনকষা ইউনিয়নের রানীনগর গ্রামের মিজানুর রহমানের স্ত্রী জোসনা বেগমের। শুধু জোসনা বেগমই নয়, উপজেলায় সহস্রাধীন মহিলা এভাবেই মাতৃত্বকালীন ভাতার জন্য ঢালাওভাবে আবেদন করছেন প্রায় ্এক মাস আগে থেকে। কোন তথ্যের ভিত্তিতে তারা আবেদন করছে,কার বরাবর করছে? তা জানতে চাইলে রানীনগরের মাবিয়া বেগম, জোসনা বেগম,বিনোদপুর ইউনিয়নের বিশ^নাথপুর গ্রামের ববিতা বেগম, শিবগঞ্জ পৌরসভার ইসরাইল মোড়ের সাবিনা  বেগম, পাকা ইনিয়নের , রোজিনা বেগম সহ শতশত মহিলা জানান, আমরা এমপি বরাবর আবেদন লিখে সেখানে মেম্বার, চেয়ারম্যান ও এমপির সুপারিশ নিয়ে উপজেলা মহিলা কর্মকর্তার নিকট জমা দিচ্ছি। কোন মেম্বার চেয়ারম্যান বলেনি। সবাই করছে তাই করছি।ভাতা পাবো কি না তা জানিনা। উপজেলার ১৫টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার  বিভিন্ন বাজারে ও হাটে ঘুরে দেখা গেছে প্রতিটা কম্পিউটার দোকানে মহিলারা স্বামী-সন্তান নিয়ে ছবি তুলতে ও দরখাস্ত লিখে নেয়ার জন্য লাইন ধরে দাঁড়িতে আছে।কম্পিউটার দোকানদার ছবি তুলা ও দরখাস্ত লিখা নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছে। কম্পিউটার  দোকানদারগণ জানান, প্রায় একমাস থেকে এভাবে দরখাস্ত ও ছবি তুলার কাজে ব্যস্ত আছি। বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে এ পর্যন্ত কয়েকহাজার মহিলা আবেদন করেছে। এব্যাপারে মনাকষা ইউপি চেয়ারম্যান মির্জা শাহাদাৎ হোসেন খুররম জানান, আমার জানা মতে এপর্যন্ত কোন বরাদ্দ আসেনি। নিয়ম অনুযায়ী বছরে দুইবার বরাদ্দ আসে। সেটি ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে নিয়ম অনুসারে যাচাই-বাছাই করে অস্বচ্ছল মহিলাদের দেয়া হয়। কিন্তু এবার করোনা ভাইরাসের কারনে গত জুন মাসে কোন বরাদ্দ আসেনি। তিনি আরো জানান যেহেতু মহিলারা আবেদন করছে সংসদ সদস্যের নিকট। তাই সুপারিশ করছি জনগণের চাপে।তিনি এটি ইচ্ছে করলে বন্ধ করে মহিলাদের হয়রানী থেকে বাঁচাতে পারেন। শাহাবাজপুর ইউনিয় চেয়ারম্যান তোজাম্মেল হক জানান আমাদের নিকট কোন নির্দেশনা ও বরাদ্দ আসেনি। সেহেতু কিছু বলতে পারবো না। তবে শুনেছি যে প্রত্য লের মহিলার সংসদ সদস্যের বরবার আবেদন করছেন। একই অবস্থা অন্যান্য ইউনিয়নেও। শিবগঞ্জ স্বাস্থ্য ও প: প: কর্মকর্তা সায়েরা খানব জানান বিষয়টি আমাদের দপ্তরের নয়। তারপরও এ প্রথম শুনলাম। যেহেতু ঘটনাটি হয়রানীমুলক। ব্যাপারটি দেখবো। শিবগঞ্জ উপজেলা মহিলা কর্মকর্তা মোসা: রহিমা রওনক জানান,মাতৃত্বকালীন ভাতা বাবদ বছরে দুইবার বরাদ্দ আসে । সেটি ইউপি চেয়ারম্যান- মেম্বার কর্তৃক মনোনীতদের নিয়ম অনুযায়ী দেয়া হয়। কিন্তু এবার এখনো কোন বরাদ্দ আসেনি। সেহেতু আমরা এ ব্যাপারে কিছু বলতে পারবো না। তবে উপজেলার সহস্রাধীক মহিলা মাতৃত্বকালীন ভাতার জন্য সংসদ সদস্য বরাবর আবেদন করছেন । সে আবেদনগুলোতে সংসদ সদস্য সুপারিশও  করছেন। একই আবেদনে কোন কোন  ইউপি চেয়াম্যন- মেম্বারগণও সুপারিশ করছেন। তিনি আরো জানান যেহেতু সংসদ সদস্যে সুপারিশ করছেন, সেহেতু আমরা বাধ্য হয়ে আবেদনগুলি জমা নিচ্ছি এবং সংগে সংগে মহিলাদেরকে বলে দিচ্ছি কোন বরাদ্দ নেই। কিন্তু তার নাছাড় বান্দার মত আবেদন জমা দিতেই আছে। এপর্যন্ত প্রায় সহস্রাধীন আবেদন জমা পড়েছে।  উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাকিব আল রাব্বী বলেন নিয়ম অনুযায়ী বরাদ্দ আসলে উপজেলায় মিটিংএর মাধ্যমে স্দ্ধিান্ত হয়। বর্তমানে কোন বরাদ্দ আসেনি। তাই মিটিংও এখনো হয়নি। স্থানীয় সংসদ সদস্য ডা: সামিল উদ্দিন আহম্মেদ বলেন,বিভিন্ন ভাবে নিষেধ করা হয়েছে।তারপরও আবেদন আসতেই আছে। তিনি আরো বলেন কোন কোন কম্পিউটার কম্পোজ ও ফটো ব্যবসায়ীরা ফেসবুকের মাধ্যমে  মিথ্যা প্রচারনা চালিয়ে মহিলাদের আবেদন করতে উদ্বুদ্ধ করছে। আমি তাদের চাপ থামতে না পেরে সুপারিশ করছি। তবে বর্তমানে কোন বরাদ্দ নেই। তবে জরুরী ভিত্তিতে যারা ফেসবুকের মাধ্যমে মিথ্যা প্রচারনা চালাচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা  গ্রহন করা হবে।

মোহা: সফিকুল ইসলাম, শিবগঞ্জ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ

দিনাজপুরে করোবায় একজনের মৃত্যুঃ নতুন আক্রান্ত ৩৬ জন


এই নিউজ মোট   203    বার পড়া হয়েছে


নারী



বিজ্ঞাপন
ওকে নিউজ পরিবার
Shekh MD. Obydul Kabir
Editor
See More » 

প্রকাশক ও সম্পাদক : শেখ মো: ওবাইদুল কবির
ঠিকানা : ১২৪/৭, নিউ কাকরাইল রোড, শান্তিনগর প্লাজা (২য় তলা), শান্তিনগর, ঢাকা-১২১৭।, ফোন : ০১৬১৮১৮৩৬৭৭, ই-মেইল-oknews24bd@gmail.com
Powered by : OK NEWS (PVT) LTD.